চোখের নিচে কালো দাগ?

চোখের নিচে কালো দাগ?

  • রিক্তা রিচি

চোখের নিচের কালো দাগ যাকে ইংরেজীতে বলে ডার্ক সার্কেল। আজকাল সব বয়সের মানুষের চোখের নিচে কালো দাগ লক্ষ্য করা যায়। যা মুখের সৌন্দর্যকে একটু হলেও কমিয়ে দেয়। সাধারণত ঘুম কম হলে, পানি কম খেলে, রুক্ষতার কারণে, বয়সের কারণে এমনকি টিভি স্ক্রীন বা মনিটরের সামনে বসে দীর্ঘক্ষণ কাজ করার ফলে চোখের নিচে কালো দাগের তৈরি হয়। আর এ নিয়ে মানুষের ভাবনার কোনো শেষ নেই। বিশেষ করে যারা একটু সৌন্দর্য সচেতন তাদের ভাবনাটা আরো বেশি। তবে কিছু ঘরোয়া পদ্ধতি এই সমস্যা থেকে আপনাকে রক্ষা করতে পারে। আসুন তাহলে সেই পদ্ধতি সম্পর্কে জেনে নেই।  


আলুর ব্যবহার

চোখের নিচে কালো দাগ দূর করতে অন্যতম মাধ্যম হতে পারে আলু। এজন্য আলুর খোসা ছাড়িয়ে তা থেতো করে নিন। তারপর আলুর রস তুলায় লাগিয়ে নিন। এবার তুলা চোখের উপর রাখুন। খেয়াল রাখবেন পুরো চোখ অর্থাৎ চোখের পাতা এবং চোখের নিচের অংশটুকু যেন ভালভাবে ঢাকা থাকে। এরপর ৮/১০ মিনিট রাখার পর ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

বরফের টুকরোর ব্যবহার

বরফের টুকরো ডার্ক সার্কেলের জন্য ভালো সমাধান হতে পারে। একটি সুতি কাপড়ে বরফ টুকরো মুড়িয়ে নিন। তারপর তা চোখের উপর ধরে রাখুন। যতক্ষন আপনি সহ্য করতে পারেন ততক্ষণ ধরে রাখুন। এভাবে ১০/১৫ মিনিট ধরে রাখুন। নিয়মিত বরফ টুকরো ব্যবহার করলে এই সমস্যার সমাধান মিলবে।

পুদিনা পাতার ব্যবহার

বৃষ্টিভেজা সন্ধ্যায় পুদিনা পাতা দিয়ে তৈরি চা সকলকেই স্বস্তি প্রদান করে। পুদিনা পাতার অনেক স্বাস্থ্য উপকারিতার কথা আমরা জানি, কিন্তু আমরা কি জানি চোখের ডার্ক সার্কেল সারাতেও দারুন কার্যকরী এটি? চোখের নিচের কালো দাগ দূর করতে পুদিনা পাতা বেটে চোখের নিচে ব্যবহার করুন। এটি ক্লান্ত চোখের জন্যও বেশ উপকারী।

ঠান্ডা চামচের ব্যবহার

অবাক হচ্ছেন? ভাবছেন এ আবার কেমন সমাধান? আরে প্রয়োগ করে দেখুন না কি হয়! একটি চা চামচ ফ্রিজে ১০/১৫ মিনিট রেখে দিন। তারপর বের করে ঠান্ডা থাকা অবধি চোখে লাগিয়ে রাখুন। এভাবে নিয়মিত ঠান্ডা চামচের ব্যবহারে কমে যাবে আপনার চোখের কালো দাগ।

ঠান্ডা টি-ব্যাগ ব্যবহার tea_bags_for_dark_circles

আমরা ব্যবহার শেষে টি ব্যাগ ফেলে দেই। কিন্তু টি-ব্যাগ ব্যবহার করে চোখের ডার্ক সার্কেলের সমাধান করা যায়। ব্যবহৃত টি-ব্যাগ ১০/১৫ মিনিট ফ্রিজে রেখে ঠান্ডা হওয়ার পর তা ফ্রিজ থেকে নামিয়ে চোখের উপর দিয়ে রাখুন। টি ব্যাগে রয়েছে টেনিন নামক এক বিশেষ উপাদান যা চোখের চারপাশের ফোলা ভাব কমাতে এবং কালো দাগ সারাতে সহায়তা করে।

শশার ব্যবহার

সৌন্দর্য চর্চায় বেশ উপকারী শসা। শশা কুচি করে কেটে তা ১০/১৫ মিনিট চোখে লাগিয়ে রাখতে পারেন। অথবা দুই টুকরো শসা নিয়ে দুচোখে দিয়ে শুয়ে থাকুন। ১৫/২০ মিনিট পর তুলে ফেলুন। এভাবে নিয়মিত শসা ব্যবহার করলে ডার্ক সার্কেল দূর হবে।

আনারস এবং হলুদ গুঁড়ার পেস্ট

চোখের ডার্ক সার্কেল দূর করে সৌন্দর্য বৃদ্ধিতে আনারস এবং হলুদ গুঁড়া দিয়ে তৈরি পেস্ট দারুন কার্যকরী। আনারসের রসের সাথে হলুদ গুঁড়ো মিশিয়ে পেস্ট বানিয়ে নিন। এই পেস্টটি চোখের নিচে ব্যবহার করুন। ১০ মিনিট পর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

ডিমের সাদা অংশ

সৌন্দর্য চর্চায় ডিমের সাদা অংশও ভূমিকা রাখে। চোখের নিচে কালো দাগ সারাতে ডিমের সাদা অংশ নিয়ে আক্রান্ত স্থানে লাগিয়ে রাখুন। ১৫ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। ডিমের সাদা অংশ ব্যবহারে চোখের চারপাশের চামড়া টান টান হবে এবং কালো দাগ দূর হবে।

গোলাপ জলের ব্যবহার 

গোলাপজলের ব্যবহার যুগ যুগ ধরে। গোলাপজলের ব্যবহারে ত্বক তাক লাগানোর মতই আকর্ষনীয় হয়। প্রতিদিন দুইবার চোখের চারপাশে গোলাপজল লাগান। ২০ মিনিট পর তা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। নিয়মিত ব্যবহারে ডার্ক সার্কেলের সমাধান হবে এবং পুরো মুখে লাবণ্যতা ফুটে উঠবে।

টমেটো ও লেবুর রস Dark Circle 4

চোখের নিচে কালো দাগ সারাতে টমেটো ও লেবুর রস ব্যাপক ভূমিকা রাখে। টমেটোর রস এবং লেবুর রস একসঙ্গে মিশিয়ে প্রতিদিন দুইবার চোখের চারপাশে ব্যবহার করতে পারেন। নিয়মিত ব্যবহারে উপকার পাবেন।

কখনো কখনো বংশগত বা হরমোনজনিত কারণে চোখের নিচে কালো দাগ পড়ে। বংশগত এবং হরমোনজনিত কারণে ডার্ক সার্কেল পড়লে তা দূর করা যায়না। এছাড়া অন্যান্য কারণে চোখের নিচে কালো দাগ পড়লে উপরিউক্ত পদ্ধতি অবলম্বন করে তা দূর করা সম্ভব। favicon59

Sharing is caring!

Leave a Comment